জ্যোত্স্নার অন্ধকারে মৌটুসী

বিনোদন রিপোর্ট
পরের সংবাদ» ২১ জুন ২০১৫, ২:৫৮ অপরাহ্ন

গার্মেন্টে অগ্নিকাণ্ডে নিখোঁজ স্বামীর সন্ধানে ঘুরছেন মৌটুসী বিশ্বাস। হাতে স্বামীর ছবি। অন্যদিকে মুনিরা মিঠু খুঁজছেন তার ছেলেকে। স্বজনকে খুঁজতে খুঁজতে এক হাসপাতালে মুখোমুখি হয় তারা দু’জন। অগ্নিকাণ্ডে আহত এক যুবককে নিয়ে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। মৌটুসী তাকে নিজের স্বামী আর মুনিরা মিঠু নিজের ছেলে বলে দাবি করে। স্বামী আর সন্তানের দাবিতে তাদের মধ্যে শুরু হয় বিবাদ। আহত যুবকের মুখের অধিকাংশ আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তার মুখ ব্যান্ডেজে ঢাকা। পায়ের এক কাটা দাগ দেখে দু’জন স্বামী আর সন্তানের দাবিতে অনড় থাকে। কিন্তু একজন মানুষ তো একেবারেই অপরিচিত দু’জনের সন্তান আর স্বামী হতে পারেন না। তার ওপর মৌটুসীর স্বামীর মা বেঁচে নেই। সিদ্ধান্ত নিতে হিমশিম খায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। আহত যুবকের সুস্থতার অপেক্ষায় সবাই। কে তার আসল স্বজন? এভাবেই এগিয়ে যায় ‘জ্যোত্স্নার অন্ধকারে’ নাটকের গল্প। পলাশ মাহবুবের রচনা এবং হাসান মোরশেদের পরিচালনায় নাটকটি প্রচার হবে আজ রাত ৯টায় এসএ টেলিভিশনে। নাটকটি সম্পর্কে নাট্যকার পলাশ মাহবুব বলেন, ‘সম্পূর্ণ ব্যতিক্রমী পটভূমির ওপর নাটকটি লেখার চেষ্টা করেছি।’

সাপ্তাহিকী


উপরে