Amardesh
আজঃঢাকা, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৩, ২ শ্রাবণ ১৪২০, ০৭ রমজান ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিকী
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

শেষ দু’দিন অনুপস্থিত বিরোধী দল : বাজেট অধিবেশন সমাপ্ত

সংসদ রিপোর্টার
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
বর্তমান সরকারের শেষ বাজেট ও নবম জাতীয় সংসদের ১৮তম অধিবেশন গতকাল মঙ্গলবার সমাপ্ত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়েই অধিবেশন শেষ হয়। এ অধিবেশনের প্রথম দিন থেকেই বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিরোধী দল সংসদে যোগ দিলেও গতকাল অধিবেশন শেষের দিন তারা অনুপস্থিত ছিল। মূলত জামায়াত ইসলামী ও গণজাগরণ মঞ্চের ডাকা হরতালের কারণে সোমবার ও মঙ্গলবার বিরোধী দল সংসদে যোগদান থেকে বিরত থাকে।
গত ৩ জুন শুরু হওয়া অধিবেশনটি চলে ২৪ কার্যদিবস। এর মধ্যে বাজেট পেশের দিনসহ মোট তিনদিন বিরোধী দল সংসদের বৈঠকে যোগদান থেকে বিরত থাকে। টানা ৮৩ কার্যদিবস অনুপস্থিতির পর প্রধান বিরোধী দল বিএনপি ও শরিকরা এ অধিবেশনে যোগ দিয়েছিল। বিরোধী দল যোগ দেয়ার পর সংসদ প্রাণবন্ত হলেও দুই দলের অসংসদীয় ভাষা ব্যবহার ছিল এ অধিবেশনের আলোচিত ঘটনা। দুই দলের কয়েকজন এমপি একে অপরের ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে অশ্লীল ও অশ্রাব্য ভাষা ব্যবহার করেছেন বলে দুইপক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়। এদিকে অসংসদীয় ভাষা ব্যবহার বন্ধে সংসদের কার্যপ্রণালী বিধি সংশোধনে সরকারি দলের এক সদস্য নোটিশ দিলেও তা প্রধানমন্ত্রীর আপত্তিতে স্থগিত করা হয়।
অধিবেশনে বাজেটের ওপর মোট ৬১ ঘণ্টা ১৩ মিনিট আলোচনা হয়। এর মধ্যে মূল বাজেটের ওপর ৫৬ ঘণ্টা ২২ মিনিট এবং সম্পূরক বাজেটের ওপর ৪ ঘণ্টা ৫১ মিনিট আলোচনা হয়। মূল বাজেটের ওপর আওয়ামী লীগের ১৫০ জন, বিএনপির ৩০ জন, জাতীয় পার্টির ১৮ জন, জাসদের ৩ জন, ওয়ার্কার্স পর্টির ২ জন, এলডিপির ১ জন, বিজেপি ১ জন ও জামায়াতের ১ জন সংসদ সদস্য আলোচনায় অংশ নেন। এছাড়া সম্পূরক বাজেটের ওপর ১৫ জন সদস্য অংশ নেন।
এ অধিবেশনে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২০১৩-১৪ অর্থবছরের জন্য ২ লাখ ২২ হাজার ৪৯১ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেছেন। এটি ২০১২-১৩ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেট অপেক্ষা ৩৩ হাজার ১৬৫ কোটি টাকা বেশি। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী স্পিকার নির্বাচিত হওয়ার পর এ অধিবেশনে তার স্পিকার হিসেবে বৈঠক পরিচালনার অভিষেক হয়।
স্পিকারের সমাপনী বক্তব্য
অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে স্পিকার বলেন. সরকারি ও বিরোধী দলের এমপিরা বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে এটিকে আরও গঠনমূলক করতে কার্যকর ভূমিকা রেখেছেন। সবার সরব অংশগ্রহণে এবারের এ অধিবেশনটি হয়ে উঠেছিল প্রাণবন্ত ও কার্যকর। আমি আশা করি ভবিষ্যতেও তারা আইন প্রণয়নসহ সংসদের সব কার্যক্রমে অংশ নিয়ে সংসদীয় গণতন্ত্রের যাত্রাকে আরও বেগবান করবেন। সংসদ হয়ে উঠবে আরও বেশি প্রাণবন্ত ও কার্যকর। তিনি বলেন, রোজা শেষেই আসবে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উত্সব ঈদুল ফিতর। আমি আপনাদেরকে এবং আপনাদের মাধ্যমে প্রিয় দেশবাসীকে ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।