Amardesh
আজঃঢাকা, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৩, ২ শ্রাবণ ১৪২০, ০৭ রমজান ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিকী
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

টেনিসের হল অব ফেমে হিঙ্গিস

স্পোর্টস ডেস্ক
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
টেনিসের র্যাকেট তুলে রেখেছেন অনেক আগে। তবে এর আগেই গড়ে গেছেন অনন্য কীর্তি। আর তার স্বীকৃতি হিসেবেই মিলেছে টেনিসের সর্বোচ্চ সম্মাননা। আন্তর্জাতিক হল অব ফেমে স্থান করে নিয়েছেন সুইস তারকা মার্টিনা হিঙ্গিস। শুধু হিঙ্গিসই নন, তার সঙ্গে টেনিসের এলিট গ্রুপে জায়গা করে নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার থেলমা কয়েন লং, দক্ষিণ আফ্রিকার ক্লিফ ড্রিসডাল, পুয়ের্তো রিকান চার্লি প্যাসেরাল ও রোমানিয়ার আয়ন টিরিয়াক। হল অব ফেমের সম্মাননা পেয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত দ্বৈত ও এককে সাবেক বিশ্ব র্যাংকিংয়ের এক নম্বর হিঙ্গিস। ডব্লুটিএর ওয়েবসাইটে সুইস এ তারকা বলেছেন, ‘আমার অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না।’
উল্লেখ্য, ১৫টি গ্র্যান্ডস্লাম জেতা হিঙ্গিস এ শতাব্দীর তারকা হলেও বাকি তিনজনই ছিলেন গত শতাব্দীর। এর মধ্যে ৯৪ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি লং খেলেছিলেন ১৯৩০-৫০ সময়ব্যাপী। জিতেছেন ১৯টি গ্র্যান্ডস্লাম। একক ও দ্বৈত উভয় ক্ষেত্রেই সফল তারকা ছিলেন ৭২ বছর বয়সী দক্ষিণ আফ্রিকার ড্রিসডাল। রজার টেইলরকে সঙ্গে নিয়ে ১৯৭২ সালে জিতেছেন ইউএস ওপেনের দ্বৈত শিরোপা। শুধু তাই নয়, এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুরের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রথম সভাপতিও ছিলেন তিনি (১৯৭২-৭৪)। এছাড়া ৬৯ বছর বয়সী পুয়ের্তো রিকান পাসেরাল খেলেছেন মার্কিন যুকরাষ্ট্রের হয়ে। ১৯৬৭ সালে ছিলেন তত্কালীন সময়ের শীর্ষ মার্কিন টেনিস তারকাদের একজন।
আর টিরিয়াক ডেভিস কাপে রোমানিয়ার হয়ে খেলেছেন ১৫ বছর। তাছাড়া ১৯৭০ সালে নাস্তাসেকে সঙ্গে নিয়ে জিতেছেন রোঁলা গাঁরোর দ্বৈত শিরোপা।