পল্লবীতে যুবকের লাশ উদ্ধার : পুরান ঢাকায় ব্যবসায়ীকে হত্যার চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার « আগের সংবাদ
পরের সংবাদ» ৩০ জুন ২০১৩, ২৩:৩২ অপরাহ্ন

রাজধানীর পল্লবীতে একটি মত্স্য খামারের পুকুর থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বিকালে কালশীর নতুন রাস্তার কাছে বৈশাখী মত্স্য খামারের পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। অন্যদিকে পুরান ঢাকার দেলোয়ার হোসেন নামের এক ব্যবসায়ীকে মাথা থেঁতলে তিনতলা ওপর থেকে ফেলে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
পল্লবী থানার এসআই এবি সিদ্দিক জানান, বিকালে বৈশাখী মত্স্য খামারের একটি পুকুর থেকে ভাসমান অবস্থায় অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার পরনে ছিল কালো গেঞ্জি। তার মুখের দাঁত ও চোয়াল ভাঙা ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে অন্য কোথাও হত্যা করে পুকুরে ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা।
এদিকে পুরান ঢাকার দেলোয়ার হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীকে মাথা থেঁতলে তিনতলা ওপর থেকে ফেলে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাত সোয়া ১০টার দিকে রহমতগঞ্জে নির্মাণাধীন একটি ভবনে এ ঘটনা ঘটে। চিকিত্সকরা জানিয়েছেন, তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।
স্থানীয় সূত্র জানায়, রাতে রহমতগঞ্জের ইদার গলিতে কে বা কারা দেলোয়ারকে মাথা থেঁতলে নির্মাণাধীন একটি তিনতলা ভবন থেকে রাস্তায় ফেলে দেয়। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আয়নাল, আনোয়ার সর্দার, রহমান, নুরুল ইসলামসহ কয়েকজন তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে তারা পালিয়ে যান।
বড় ভাই আনোয়ার হোসেন জানান, শনিবার সন্ধ্যার পর থেকে তার ভাইকে পাওয়া যাচ্ছিল না। রাত ১২টার দিকে হাসপাতালে এসে ভাইয়ের খোঁজ পান। তার অবস্থার অবনতি হলে রাতেই তাকে এলিফ্যান্ট রোডের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে কে বা কারা কী কারণে তার ভাইকে হত্যার চেষ্টা করেছে, এ বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারেননি। দেলোয়ার লালবাগের প্যাকেজিং ব্যবসায়ী। তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। তার বাবার নাম আবদুস সাত্তার।
চকবাজার থানার এসআই অনাথ মিত্র জানান, এ ঘটনায় মামলা প্রস্তুতি চলছে। ব্যবসায়ী দেলোয়ারের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তবে তিনতলা থেকে তাকে ফেলে দেয়া হয়েছে, এমন কোনো সত্যতা তারা পাননি।

প্রথম পাতা এর আরও সংবাদ

সাপ্তাহিকী


উপরে

X