Amardesh
আজঃঢাকা, শনিবার ১৮ মে ২০১৩, ২০১৩, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২০, ৭ রজব ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২.০০টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিকী
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

সাক্ষাত্কারে আল্লামা শফী : দাবি বাস্তবায়নের জন্য মৃত্যুর আগপর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব : ইসলামবিদ্বেষীরা সরকারকে ঘিরে রেখেছে

বাংলার চোখ
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকায় হেফাজতে ইসলামের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঘটে যাওয়া ঘটনার পর থেকে হেফাজত নিয়ে চলছে বিভিন্ন মহলে নানা গুঞ্জন। কোনো মহলের ধারণা হেফাজতের দিনক্ষণ শেষ, আবার অনেকে মনে করছেন হেফাজত এখন বিধ্বস্ত। তবে হেফাজতে
ইসলাম এখন দাঁড়ানোর চেষ্টায় রত। আগের অবস্থানে ফেরার জন্য তৃণমূল পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতারা অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছে।
তাছাড়া সংগঠনের কার্যক্রমকে কীভাবে বেগবান করা যায় তা নিয়ে বেশ তত্পর হয়ে উঠেছে নেতাকর্মীরা। হেফাজতে ইসলামের ১৩ দফা দাবি, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক নেতাকর্মীদের মুক্তি, নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতন ও পুলিশি হামলা-মামলাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে একান্তে কথা হয় হেফাজতের আমির
আল্লামা শাহ আহমদ শফীর সঙ্গে। এ সময় তিনি হেফাজতের ১৩ দফা দাবি বাস্তবায়নের জন্য মৃত্যুর পূর্বক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলন করে যাবেন বলে জানান।
বাংলার চোখ : হেফাজতের বর্তমান অবস্থা কী?
আল্লামা শফী : হেফাজতে ইসলাম আগের অবস্থানে আছে। কিছু ইসলামবিদ্বেষী লোক সরকারকে ভুল বুঝিয়ে সাম্প্রতিক ঘটনাটি ঘটিয়েছে।
বাংলার চোখ : ১৩ দফা দাবি নিয়ে হেফাজতের যে আন্দোলন তা কি এখন স্থগিত?
আল্লামা শফী : আমাদের আন্দোলন ঈমান-আকস্ফিদা রক্ষার। এই ১৩ দফা দাবি সরকার বাস্তবায়ন না করা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে এবং আমার মৃত্যুর পূর্বক্ষণ পর্যন্ত এই আন্দোলন চালিয়ে যাব।
বাংলার চোখ : সাম্প্রতিক ঘটনার পর সরকারের পক্ষ থেকে কোনো প্রস্তাব নিয়ে যোগাযোগ করা হয়েছে কি?
আল্লামা শফী : ৫ মে’র পর থেকে আমার সঙ্গে বা হেফাজতের কোনো শীর্ষ নেতার সঙ্গে সরকার বা সরকারের কোনো মহল যোগাযোগ করেনি।
বাংলার চোখ : হেফাজত মহাসচিবসহ গ্রেফতারকৃত নেতাকর্মীদের মুক্তির ব্যাপারে সরকারের সঙ্গে আলোচনার কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন কি?
আল্লামা শফী : কী পরিস্থিতি তৈরি করে সরকার তাদের গ্রেফতার করেছে তা দেশের কোটি জনতা অবলোকন করেছে। যেহেতু ইসলামবিদ্বেষীরা সরকারকে ঘিরে রেখেছে, তাই ওদিকে না গিয়ে আমরা হেফাজতে ইসলামের মহাসচিবসহ সব নেতাকর্মীর মুক্তির বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নিয়েছি।
বাংলার চোখ : হেফাজত ও আপনাদের আকস্ফিদাবিদ্বেষী ১৩ দফা দাবির সমালোচনা করা আলেমদের বর্তমান অবস্থা কী?
আল্লামা শফী : ৫ মে মধ্যরাতে সরকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে আলেম ও রসুলপ্রেমীদের ওপর যে বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে তা দেখে তাদের মধ্যে অনেকে এখন আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে যাচ্ছে।
বাংলার চোখ : আপনাদের এখন নতুন কর্মসূচি কী?
আল্লামা শফী : আমরা অচিরেই হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির শীর্ষ আলেমদের সঙ্গে পরামর্শ করে পরবর্তী কর্মসূচি ঠিক করব। পরে আপনাদের তা জানানো হবে।