Amardesh
আজঃ শনিবার ১৯ জানুয়ারি ২০১৩, ৬ মাঘ ১৪১৯, ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৪    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 বিশেষ আয়োজন
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

বাঁশখালীতে বেড়িবাঁধের কাজে অনিয়ম

মুহাম্মদ মুহিব্বুল্লাহ ছানুবী, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম)
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
বাঁশখালী উপকূলে বেড়িবাঁধের পোল্ডার ৬৪/১ এ এবং ৬৪/১ বি’র ৯ দশমিক ৭ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ নির্মাণ ও সংস্কার কাজে দুজন ঠিকাদার, পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলীসহ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে কাজ না করে বিল উত্তোলন করার অভিযোগে গত বুধবার বাঁশখালী থানায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে। ঘূর্ণিঝড় নার্গিস ও রেশমীসহ জোয়ারের আঘাতে বেড়িবাঁধ ভাঙনের পর বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে উপকূল এলাকায় ২০০৯-১০ ও ২০১০-১১ অর্থসালে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স আলমগীর অ্যান্ড ব্রাদার্স এবং নুর সিন্ডিকেট ১১ কোটি টাকার বেড়িবাঁধ নির্মাণ ও সংস্কার কাজ পায়। এ কাজে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় বিল উত্তোলনের সময় ঠিকাদাররা ৩০ লাখ টাকা আত্মসাত্ করে। অভিযোগের ভিত্তিতে উপকূলীয় এলাকায় দুদক কর্মকর্তারা মাঠ পর্যায়ে তদন্ত করে দুর্নীতির প্রমাণ পেয়ে দুদক সমন্বিত কার্যালয় চট্টগ্রাম-১-এর উপ-সহকারী পরিচালক হুমায়ন কবির বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। দুদকের দেয়া মামলা সূত্রে জানা যায়, বাঁশখালী উপকূলের ৬৪/১ এ এবং ৬৪/১ বি পোল্ডারে ভেতরের অংশ বাহারছড়া, চাম্বল, সরল, কাথারিয়া ও শেখেরখিল অংশে ৯ দশমিক ৭ কিলোমিটার ঠিকাদাররা কাজ না করে বিল উত্তোলন করেছে। বেড়িবাঁধের দু’পাশে ঘাস লাগানোর কথা থাকলেও কোনো জায়গায় ঘাস লাগানো হয়নি। প্রায় ৬শ’ মিটার বেড়িবাঁধের কোনোরকম কাজ না করেই বিল উত্তোলন করা হয়েছে।
অথচ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স আলমগীর অ্যান্ড ব্রাদার্স ৬৪/১ পোল্ডারে ৯ কোটি ৮৮ লাখ ৭০ হাজার টাকার কাজের মধ্যে ৯ কোটি ৮৭ লাখ ৬৫ হাজার টাকার বিল উত্তোলন করেছেন। বাঁশখালী থানায় দুদকের দায়ের করা দুই মামলার আসামিরা হচ্ছেন চট্টগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) তত্কালীন নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফ জামান, বর্তমান উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নুর মোহাম্মদ, তত্কালীন উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবদুর রহিম, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবুল বাশার, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স আলমগীর অ্যান্ড ব্রাদার্সের মালিক মো. আলমগীর, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নুর সিন্ডিকেটের মো. নুর মোহাম্মদ। দুদক সমন্বিত কার্যালয় চট্টগ্রাম-১-এর উপ-সহকারী পরিচালক হুমায়ন কবির বলেন, দীর্ঘদিন বাঁশখালী উপকূলে বেড়িবাঁধের নির্মাণ কাজে অনিয়ম তদারকির পর দুর্নীতির চিত্র স্পষ্ট হওয়ায় জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছি। আসামিদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। চট্টগ্রাম পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফ জামান বলেন, দুদক পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে শুনেছি। এই মামলা ষড়যন্ত্রমূলক ।