Amardesh
আজঃ শনিবার ১৯ জানুয়ারি ২০১৩, ৬ মাঘ ১৪১৯, ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৪    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 বিশেষ আয়োজন
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

প্রযুক্তিতে ইরানের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন বেশি দূর নয় : আহমাদিনেজাদ : সমঝোতা ছাড়াই ইরান আইএইএ বৈঠক শেষ

রয়টার্স
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
ইরান এবং আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র প্রতিনিধি দলের মধ্যে কোনো সমঝোতা ছাড়াই দুদিনের পরমাণু আলোচনা শেষ হয়েছে। তবে দু’পক্ষ আবার আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি নতুন করে বৈঠকে বসতে রাজি হয়েছে। সে বৈঠকও হবে ইরানের রাজধানী তেহরানে। বুধবার শুরু হয়ে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চলে এবারের বৈঠক। এতে ইরানের পক্ষে নেতৃত্ব দেন আইএইএ-তে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত আলি আসগর সুলতানিয়েহ। অন্যদিকে আইএইএ’র পক্ষে বৈঠকে নেতৃত্ব দেন সংস্থার সহকারী মহাপরিচালক হারম্যান নাকায়েত। ইরানের পরমাণু কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট জটিলতা নিরসনে দু’পক্ষ পারস্পরিক সহযোগিতার একটি কাঠামো খুঁজে বের করার চেষ্টা করে, তবে চূড়ান্ত সমঝোতা হয়নি। এর আগে মঙ্গলবার রাজধানী তেহরানে পৌঁছে আইএইএ প্রতিনিধি দলের প্রধান নাকায়েত আশা প্রকাশ করেছিলেন, তারা ইরানের পারচিন স্থাপনা পরিদর্শনের সুযোগ পাবেন; কিন্তু ইরান এ বিষয়ে রাজি হয়নি। তেহরান বলেছে, পারচিন হচ্ছে একটি সামরিক ঘাঁটি এবং সেখানে সামরিক বাহিনী তার নিজস্ব কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। এ স্থাপনায় কোনো পরমাণু কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে না।
এদিকে ইরানের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমাদিনেজাদ বলেছেন, সেদিন আর বেশি দূরে নয়, যেদিন প্রযুক্তি ক্ষেত্রে তার দেশ শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করবে। বায়োটেকনোলজির ক্ষেত্রে ইরানি বিশেষজ্ঞদের আটটি সাফল্যের ‘মোড়ক উন্মোচন’ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে ইরানের দ্রুত সফলতা অর্জনের কথা তুলে ধরে প্রেসিডেন্ট বলেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দেশের জনগণের জন্য এ ধরনের সাফল্য অর্জন দৈনন্দিন কর্মকাণ্ডে পরিণত করা হবে। তিনি আরও বলেন, উঁচু-প্রযুক্তি ও মেডিকেল পণ্যের ক্ষেত্রে বাস্তব সফলতা অর্জনের জন্য রাষ্ট্রীয় নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে কিছু পরিবর্তন আনা জরুরি হয়ে পড়েছে। তবে, সে পরিবর্তন কি ধরনের হবে তিনি তা বিস্তারিত বলেননি। বিজ্ঞান গবেষণাপত্র প্রকাশের ক্ষেত্রে ইরান ১৬তম অবস্থানে পৌঁছেছে বলে সম্প্রতি কানাডার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘সায়েন্স-মেট্রিক্স’ এক রিপোর্ট প্রকাশের পর প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমাদিনেজাদ এসব কথা বললেন।
নতুন চালকবিহীন বিমান : ইরানি গবেষকরা পুরোপুরি নিজস্ব প্রযুক্তিতে নতুন এক চালকবিহীন বিমান বা ড্রোন তৈরি করেছে। নতুন এ ড্রোনটি বেসামরিক নানা কাজে ব্যবহার করা যাবে। ইরানের আযাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাদর্শির শাখার প্রযুক্তিবিদরা ড্রোনটি তৈরি করেছে বলে এর প্রকল্প ব্যবস্থাপক মোস্তাফা শুজায়ী জানান। তিনি জানান, বিমানটিতে বসানো কম্পিউটারের সাহায্যে এটিকে চালানো যাবে এবং কোনো ধরনের দূর নিয়ন্ত্রণের প্রয়োজন পড়বে না। উড়ে যাওয়ার সময় বিমানটি ছবি তুলতে এবং ভিডিও গ্রহণ ও তা প্রেরণ করতেও পারবে। মোস্তাফা শুজায়ী আরও জানান, ভূ-প্রাকৃতিক জরিপ, আবহাওয়ার পূর্বাভাস উন্নয়ন, নির্দিষ্ট এলাকার ডিজিটাল মানচিত্র তৈরির কাজে চালকবিহীন এ বিমানটি ব্যবহার করা যাবে। রাডারের শ্যেন চক্ষু ফাঁকি দিতে সক্ষম এ ড্রোনটি আকাশের এক স্থানে স্থির অবস্থায় থাকতে পারে। এর ডানার দৈর্ঘ্য দুই মিটার এবং ওজন ৫ দশমিক ৪ কিলোগ্রাম। ভূপৃষ্ঠের এক হাজার মিটার উঁচু দিয়ে বিমানটি ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার বেগে উড়তে পারবে।
এদিকে শত্রুদের ফাঁদে পা না দিতে ইরানের সরকারি কর্মকর্তাদের সতর্ক করে দিয়েছেন ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনীতে সর্বোচ্চ নেতার প্রতিনিধি হুজ্জাতুল ইসলাম আবদুল্লাহ হাজি সাদেকি। ইরানের স্বেচ্ছাসেবী বাহিনী বাসিজের সঙ্গে বৈঠকের সময় তিনি এ সতর্কতা উচ্চারণ করেছেন।