Amardesh
আজঃ শনিবার ১৯ জানুয়ারি ২০১৩, ৬ মাঘ ১৪১৯, ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৪    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 বিশেষ আয়োজন
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

হোমসে ১০৬ জনকে হত্যা করেছে আসাদ বাহিনী

রয়টার্স
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
সিরিয়ার হোমসে প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের অনুগত বাহিনীরা ১শ’র বেশি মানুষ হত্যা করেছে বলে জনিয়েছে একটি মানবাধিকার সংস্থা। আলেপ্পোর বিশ্ববিদ্যালয় ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ৮০ জন নিহত হওয়ার দিনই বাসাতিন শহরে নিধনযজ্ঞ চালানো হয়। দেশটির মধ্যাঞ্চলীয় এ শহরটির বাসাতিন আল-হাসায়িয়া এলাকায় মঙ্গলবার আসাদ-সমর্থক বাহিনী প্রায় ১০৬ জনকে পুড়িয়ে, গুলি করে বা ছুরির আঘাতে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস। বৃহস্পতিবার সংস্থাটি জানিয়েছে, এলাকাটিতে হামলা চালিয়ে অধিবাসীদের বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে দিয়েছে সরকারের অনুগত বাহিনী। তবে সিরিয়ায় সংবাদ মাধ্যমগুলোর ওপর বিধি-নিষেধ থাকায় রয়টার্স এ তথ্য নিরপেক্ষভাবে যাচাই করতে পারেনি। পর্যবেক্ষক সংস্থাটির প্রধান রামি আবদেল রহমান জানিয়েছেন, ‘একই পরিবারের ১৪ জন নিহত হয়েছেন, যাদের মধ্যে তিন শিশুও রয়েছে।’ এছাড়া ‘অন্য একটি পরিবারের ৩২ জনের সবাই নিহত হয়েছেন’ বলে জানিয়েছেন তিনি। আবদেল রহমান বলেছেন, জাতিসংঘের এ হত্যাযজ্ঞের তদন্ত করা উচিত। সিরিয়ায় গত বছর মার্চে শান্তিপূর্ণভাবেই সরকার-বিরোধী আন্দোলন শুরু হয়েছিল। এরপর তা ক্রমে গৃহযুদ্ধে রূপ নেয় এবং সহিংসতায় এ পর্যন্ত ৬০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সিরীয় জঙ্গি বিমান ও সৈন্যরা গ্রামাঞ্চলে জোরদার হামলা চালায়। বিদ্রোহী ও সরকারি গণমাধ্যমে বলা হয় বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোতে বোমা হামলা চালায়। দেরা, হামা, হোমস, আলেপ্পো ও দামেস্কে বিদ্রোহীদের সঙ্গে সিরীয় সেনাদের সংঘর্ষ হয়। শুধু উপকূলীয় আসাদের শক্তঘাঁটি লাটকিয়া ও টারটুজে সংঘর্ষ হয়নি। হোসেনিয়েইর এক বাড়িতে বিমান হামলায় সাত শিশুসহ ১৫ জন নিহত হয়। দামেস্কের উপকণ্ঠে বিমান হামলায় এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। রয়টার্সের কাছে পাঠানো এক ফুটেজে দেখা যায় ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে লোকজন অঙ্গহানি হওয়া শিশুদের লাশ টেনে বের করছে। সরকার দাবি করেছে তারা কিছু এলাকার ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছে। গৃহচ্যুত লোকজন জর আবি জায়েদ-এ ফিরতে শুরু করেছে। এলাকাগুলো পুরোপুরি সন্ত্রাসীমুক্ত করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে।