Amardesh
আজঃঢাকা, মঙ্গলবার ৮ জানুয়ারি ২০১৩, ২৫ পৌষ ১৪১৯, ২৫ সফর ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

হরতালে গাড়ি ভাংচুর : ১৯ বিএনপি নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণপাড়া থানায় মামলা

ব্রাহ্মণপাড়া (কুমিল্লা) প্রতিনিধি
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
কুমিল্লা-বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া-মিরপুর সড়কে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সদর এলাকায় হরতাল চলাকালে মাইক্রোবাস ভাংচুরের অভিযোগে উপজেলা যুবদলের সভাপতি মো. শাহজাহান সাজুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরে তাকে প্রথম আসামি করে বিএনপির সদস্য সচিবসহ ১৯ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ২৫-৩০ জনের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা করে পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় রশীদ মার্কেট এলাকা থেকে হরতাল সমর্থনকারীরা একটি মিছিল বের করে। মিছিলটি উপজেলা সদরের সিএনজিচালিত অটোরিকশা স্ট্যান্ডের কাছে পৌঁছলে পিকেটাররা একটি মাইক্রোবাসে ভাংচুর করে। এ সময় পুলিশ এসে মিছিলটি ছএভঙ্গ করে দেয়। পুলিশ এলাকা থেকে উপজেলা যুবদলের সভাপতি মো. শাহজাহান সাজুকে আটক করে। পরে এসআই সুজন চন্দ্র পাল বাদী হয়ে রাতে ব্রাহ্মণপাড়া বিএনপির সদস্য সচিব শাহআলম খোকন অজ্ঞাত ২৫-৩০ জনকে আসামি করে ব্রাহ্মণপাড়া থানায় দু্রত বিচার আইনে একটি মামালা করে। মামলা নং- ০২, তারিখ ০৬-০১-১৩। মামলার আসামিরা হলো, থানা যুবদলের সভাপতি শাহজাহান সাজু, বিএনপির সদস্য সচিব শাহআলম খোকন, সাংগঠনিক দায়িত্বে আমির হোসেন, যুবদলের সহ-সভাপতি কবির হোসেন, ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সবুজ, যুবদল সদর ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, সভাপতি মজিবুর রহমান লিটন, ছাত্রদল সদর ইউনিয়নের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহজালাল প্রকাশ শাহপরান, থানা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক শরাফ উদ্দিন, সিদলাই কলেজ শাখার ছাত্রদলের আহ্বায়ক বায়েজিত হোসেন, থানা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হোসেন, থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক জাকির হোসেন সম্রাট, মাধবপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের আহ্বায়ক মো. শামীম, ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মিজানুর রহমান বাবু, থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনিসুর রহমান রিপন, ছাত্রদল নেতা আক্তার হোসেন, আশিকুর রহমান, সদর ইউনিয়ন ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাহমুদ আলী ও থানা যুবদলের সহ-সভাপতি মো. বিল্লাল হোসেন।
এদিকে ব্রাহ্মণপাড়া বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতারা গ্রেফতার আতঙ্কে দিনাতিপাত করছেন। পুলিশ প্রতিদিন রাতে তাদের বাড়ি হানা দিচ্ছে। ব্রাহ্মণপাড়া থানা বিএনপির সদস্য সচিব এ প্রতিনিধিকে বলেন, হরতাল চলাকালে আমি কুমিল্লার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিত্সাধীন ছিলাম। হরতালের সময় আমি ব্রাহ্মণপাড়া উপস্থিত ছিলাম না। হীন উদ্দেশ্যে হয়রানি করার জন্য আমার এবং দলের অন্যদের নামে পুলিশ মিথ্যা মামলা দিয়েছে। আমি এ মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা জানাই।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উত্তম কুমার বড়ুয়া এ প্রতিনিধিকে বলেন, আটক করা আসামিকে গতকাল কুমিল্লা কোর্টের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে এবং বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া বিএনপির সাংগঠনিক সমন্বয়ক জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, বুড়িচং বিএনপির সভাপতি মিজানুর রহমান চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন ব্রাহ্মণপাড়া যুবদলের সভাপতিকে গ্রেফতার ও নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে অচিরেই এ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার সহ সব নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেছেন।