Amardesh
আজঃঢাকা, মঙ্গলবার ৮ জানুয়ারি ২০১৩, ২৫ পৌষ ১৪১৯, ২৫ সফর ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

ফেনীকে হারিয়ে শীর্ষে শেখ জামাল

স্পোর্টস রিপোর্টার
পরের সংবাদ»
ফেনী সকার ক্লাবের বিপক্ষে কষ্টের জয় তুলে নিয়ে পেশাদার লিগের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে শিরোপা প্রত্যাশী শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। গতকাল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বিকাল ৪টা ১৫ মিনিটে শুরু হওয়া এ ম্যাচে শেখ জামালের হয়ে গোলগুলো করেন মাইক ওটোজারেরি এবং শাকিল। এ জয়ে ৬ ম্যাচ শেষে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে রয়েছে ধানমন্ডির দলটি। সমান ম্যাচ শেষে মাত্র এক পয়েন্ট কম নিয়ে তাদের পরেই অবস্থান করছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। অন্যদিকে তৃতীয় স্থানে থাকা আবাহনীর ঝুলিতে রয়েছে ১৩ পয়েন্ট। আকাশী-হলুদ শিবিরও ৬ ম্যাচ শেষে এ পয়েন্ট অর্জন করেছে। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র ৭ ম্যাচ শেষে চার জয়, এক ড্র আর দুই হারে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে আবাহনীর চেয়ে পিছিয়ে থেকে চতুর্থ স্থান নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে। দেশের ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের অবস্থা আরও শোচনীয়। সাত ম্যাচ খেলে মাত্র তিনটিতে জয়ের দেখা পেয়েছে সাদা-কালোরা। এক ম্যাচে ড্র আর তিন ম্যাচে হারের লজ্জা রয়েছে ক্লাবপাড়ার দলটির ঝুলিতে। ১০ পয়েন্ট অর্জন করা মোহামেডানের অবস্থান পাঁচে। টিম বিজেএমসি ৮ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে ৬ষ্ঠ স্থানে। শেখ জামালের সঙ্গে হারলেও পয়েন্ট তালিকার সপ্তমে থাকা ফেনী সকার ক্লাবের অবস্থানের কোনো হেরফের হয়নি। ৩ পয়েন্ট নিয়ে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে গোলগড়ে পেছনে ফেলেছে তারা। আর লিগে টানা ৬ হারের লজ্জা নিয়ে তলানীতে রয়েছে দেশের ঐতিহ্যবাহী ক্লাব দল ব্রাদার্স ইউনিয়ন।
দেশের সর্বোচ্চ মর্যাদার এ ফুটবল আসরে এখনও হারের মুখ দেখেনি শেখ জামাল। টিম বিজেএমসিকে ২-৩ গোলে হারিয়ে লিগে যাত্রা করা ফেডারেশন কাপের রানারআপ দলটি মোহামেডান ও মুক্তিযোদ্ধার মতো শক্তিশালী দলকে পরাস্ত করে শিরোপা পুনরুদ্ধারের আভাস দেয়। এরপর নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে আবাহনীর সঙ্গে পয়েন্ট ভাগ করে মাঠ ছাড়ে জোসেফ আফুসির শিষ্যরা। লিগের গত রাউন্ডে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে ০-৪ গোলে বিধ্বস্ত করে শেখ জামাল। অপরাজিত এ দলটি গতকাল সফরকারী ফেনীর বিপক্ষে মাঠে নামার প্রথমার্ধে তেমন সুবিধা আদায় করতে পারেনি। ফেডারেশন কাপের কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা সকার ক্লাবের বিপক্ষে গোলের মুখ দেখতে ম্যাচের ৭৮ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে তাদের। দলের নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার মাইক ওটোজেরেরির গোলে স্বস্তি ফিরে আসে শিরোপা প্রত্যাশী দলটির শিবিরে। স্বদেশী সানডের সিজুবার পাস থেকে বল পেয়ে নিশানা ভেদ করেন মাইক ওটোজারেরি (১-০)। এগিয়ে যাওয়ার উল্লাসে মেতে ওঠা শেখ জামালের হাসি মাত্র ৮ মিনিটেই কেড়ে নেন ফেনী সকারের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ভিক্টর এন্থনি। জটলার ভিতর থেকে গোল করে ফেনী সকারকে ম্যাচে ফেরান এ নাইজেরিয়ান (১-১)। কিন্তু জোসেফ আফুসির শিষ্যরা জয়সূচক গোলটি আদায় করে নিতে খুব বেশি দেরি করেনি। এক মিনিটের ব্যবধানে শাকিল গোল আদায় করে দলকে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে নিয়ে আসেন। বাঁপ্রান্ত দিয়ে আলমগীর রানার ক্রসে গোল করেন শাকিল (২-১)।
কষ্টের জয়ের দিনও তৃপ্তির ঢেঁকুর গেলা শেখ জামালের কোচ জোসেফ আফুসি বলেন, ‘আমার তিন পয়েন্ট প্রয়োজন ছিল, সেটা পেয়েছি। তবে অনেক সুযোগ হাতছাড়া না করলে ব্যবধানটা আরও বড় হতো। লিগে জয়টাই বড় বিষয়। ব্যবধানটা আমার কাছে মুখ্য নয়।’ নিজেদের পঞ্চম ম্যাচে হোম গ্রাউন্ডে মুক্তিযোদ্ধার বিপক্ষে লিড নিয়েও পয়েন্ট হারানো ফেনী সকার ক্লাব গতকালও দারুণ খেলেছে। ম্যাচের তিন মিনিটেই গোলের দেখা পেয়ে যেত দলটি। কিন্তু নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ভিক্টোরি এন্থনির মাপা শট গোল লাইন অতিক্রম করার ঠিক আগ মুহূর্তে ইয়ামিন বল ফিরিয়ে দিয়ে হতাশ করেন সফরকারীদের। শিরোপা প্রত্যাশী দলটির বিপক্ষে সমান তালে লড়াই করেও শেষ পর্যন্ত হার নিয়ে মাঠ ছাড়ায় ফেনী সকারের কোচ মাহমুদুল হক লিটন বলেন, ‘ম্যাচে ফিরে আসার পর আমরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই গোল হজম করেছি। ডিফেন্সের দুর্বলতার কারণেই এমনটা হয়েছে। তবুও আমি দলের পারফর্ম্যান্সে সন্তুষ্ট।’ আগামিকাল একই ভেন্যুতে আবাহনীর বিপক্ষে লড়বে টিম বিজেএমসি।