Amardesh
আজঃঢাকা, রোববার ৬ জানুয়ারি ২০১৩, ২৩ পৌষ ১৪১৯, ২৩ সফর ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

একাংশের সভায় নতুন কমিটি গঠনের ঘোষণা : আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় বলে আপনি অ্যাটর্নি হয়েছেন : অ্যাটর্নিকে খসরু

স্টাফ রিপোর্টার
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
আওয়ামীপন্থী আইনজীবী সংগঠনগুলোর মোর্চা সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের আমির উল ইসলাম অংশের নেতারা পৃথক সভা করেছেন। গতকাল সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে একাংশের কেন্দ্রীয় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা থেকে আওয়ামী সমর্থক আইনজীবীদের একাংশ নতুন আঙ্গিকে পরিষদ গঠন করার উদ্যোগের কথা জানায়। এর আগে গত ২৪ নভেম্বর আবদুল বাসেত মজুমদারকে আহ্বায়ক করে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের পাঁচটি অঙ্গসংগঠনের নেতারা আরেকটি সমন্বয় পরিষদ গঠন করেছিলেন।
টেলিযোগাযোগমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গতকালের একাংশের সভায় সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শাজাহান মিয়া, সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক নুরুল ইসলাম সুজন, সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব সুব্রত চৌধুরী, আইনজীবী সমিতির সহসভাপতি একেএম সাঈফুদ্দিন, আবদুল্লাহ আবুসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা আইনজীবীরা বক্তব্য রাখেন। তারা পরিষদের অপর অংশের নেতা আবদুল বাসেত মজুমদারের তীব্র সমালোচনা করেন।
সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমকে উদ্দেশ করে বলেছেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় বলে আপনি অ্যাটর্নি হয়েছেন। আমিই আপনাকে অ্যটর্নি বানিয়েছি। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে জীবনেও আপনি অ্যাটর্নি হতে পারতেন না। সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয়ে পরিষদের আমির উল ইসলাম অংশের আয়োজিত প্রস্তুতি সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
অ্যাটর্নি জেনারেলকে উদ্দেশ করে আবদুল মতিন খসরু বলেন, আমি আমার কলমে আপনাকে অ্যাটর্নি বানিয়েছি। আমাকে অনেকে বলেছিলেন, অ্যাডভোকেট মাহাবুবে আলম গণফোরাম করেন। আমি বলেছি, তিনি গণফোরাম করুক বা যা-ই করুক, তিনিই অ্যাটর্নি হবেন। আমি তাতে কান দিইনি। এসময় তিনি আইনমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বলেন, আগামী ১২ জানুয়ারি গণভবনে নেত্রীর কাছে যাওয়ার আগে এ সমস্যার সমাধান করুন। আপনার ভূমিকা আপনি পালন করুন। তিনি বলেন, যারা আজকে বিরোধিতা করছে খোঁজ নিয়ে দেখেন, তাদের কেউ আওয়ামী লীগ, যুবলীগের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল না।
মতিন খসরু বিভক্তি সৃষ্টিকারীদের উদ্দেশে বলেন, আওয়ামী লীগের পল্গাটফর্ম ব্যবহার করে আওয়ামী লীগের কলিজায় আঘাত করবেন, তা হবে না। তিনি বলেন, আমরা যেখানে স্বাধীনতাবিরোধীদের সঙ্গে লড়ব তা না, আমাদের এখন ঘরের শত্রুর সঙ্গে লড়তে হচ্ছে। আমাদের গর্তে লুকিয়ে থাকা শত্রুদের বিরুদ্ধে লড়তে হচ্ছে।
তিনি আইনজীবীদের উদ্দেশে বলেন, চোখ বন্ধ করে দেখুন, যারা এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত তাদের কোনো কমিটমেন্ট নেই, তারা কোনোদিনও ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আওয়ামী লীগ করেননি। আজকে তাদের কর্মকাণ্ড বিএনপি-জামায়াতকে সহযোগিতা করছে। যারা সংগঠনে বিভক্তি সৃষ্টি করে—এই মোনাফেকদের সমন্বয় পরিষদে কোনো স্থান নেই। তাদের প্রতিরোধ করতে হবে।
ডাক ও টেলিযোগযোগমন্ত্রী সাহারা খাতুন বলেন, যখন যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হচ্ছে, ঠিক সেই মুহূর্তে আবদুল বাসেত মজুমদার কিছু লোক নিয়ে আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ ভাঙার ষড়যন্ত্র করছেন। এটা কিছুতেই করতে দেয়া যায় না। আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার ও ইউসুফ হোসেন হুমায়নকে উদ্দেশ করে মন্ত্রী বলেন, লিখিত ওয়াদা দিয়েও কেন তারা কথা রাখলেন না, তা আমার বোধগম্য নয়। সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ যখন আমরা গঠন করি। তার মেইন কমিটিতে বাসেত মজুমদারের নাম না থাকার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, কীভাবে তিনি আইনজীবীদের সঙ্গে এভাবে প্রতারণা করেন। তিনি বলেন, বাসেত মজুমদার সাহেব বেআইনিভাবে কমিটি গঠন করেছেন। এই বেআইনি কাজ তাকে করতে দেয়া যায় না। সাহারা খাতুন বলেন, সমন্বয় পরিষদ নিয়ে সংঘটিত সমস্যা সমাধানের জন্য আইনমন্ত্রী কথা দিয়েছেন। অথচ এখনও সমাধানের কোনো উদ্যোগ নিতে দেখছি না। এ সময় তিনি আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের কেন্দ্রীয় সম্মেলনের প্রস্তুতির ৫০১ সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি গঠনের ঘোষণা করেন।
আমীর উল ইসলাম বলেন, আগামী এপ্রিল মাসের যে কোনো সময় প্রধানমন্ত্রীর সময় অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সমন্বয় পরিষদের নতুন সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব উঠে আসবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত, যারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বিশ্বাস করবে, সেসব আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সদস্য হতে পারবেন।
উল্লেখ্য, গত ২৪ নভেম্বর অভ্যন্তরীণ বিরোধের জের ধরে সরকার সমর্থক আইনজীবীদের সংগঠন সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ ভেঙে আরেকটি কমিটি গঠন করা হয়। ওইদিন সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে দুই গ্রুপের প্রকাশ্যে পাল্টাপাল্টি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের বর্তমান আহ্বায়ক ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলামকে পাশ কাটিয়ে বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদারকে নতুন আহ্বায়ক হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়। অন্যদিকে ব্যারিস্টার এম আমীর উল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পৃথক এক সভা থেকে নতুন কমিটি করার জন্য সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনকে আহ্বয়াক করে ১০১ সদস্যের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়।