Amardesh
আজঃঢাকা, রোববার ৬ জানুয়ারি ২০১৩, ২৩ পৌষ ১৪১৯, ২৩ সফর ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

হরতালের সমর্থনে সারাদেশে ১৮ দলের বিক্ষোভ : খুলনায় গ্রেফতার ১০ কালিয়াকৈরে পুলিশের লাঠিচার্জে আহত ৩৫ জন

ডেস্ক রিপোর্ট
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
হরতালের সমর্থন ও জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজশাহী, খুলনা, চট্টগ্রামসহ সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ১৮ দলীয় জোট। খুলনায় ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গাজীপুরের কালিয়াকৈরে পুলিশের লাঠিচার্জে আহত হয়েছে ৩৫ জন। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :
রাজশাহী : জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ১৮ দলীয় ঐক্যজোটের ডাকা আজকের সকাল-সন্ধ্যা হরতালের সমর্থনে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল রাজশাহী মহানগর বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভুবনমোহন পার্ক এলাকা থেকে শুরু হয়ে বিক্ষোভ মিছিলটি মহানগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এর আগে ভুবনমোহন পার্কের সামনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মিজানুর রহমান মিনুর সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তৃতা করেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন, বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগর যুবদল আহ্বায়ক মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি নজরুল হুদা, ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক, মহানগর যুবদল যুগ্ম আহ্বায়ক আসলাম সরকার, ওয়ালিউল হক রানা, মহানগর ছাত্রদল সভাপতি মাহফুজুর রহমান রিটন, সাধারণ সম্পাদক শাহ মইনুল হোসেন চৌধুরী শান্ত প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার দেশ পরিচালনায় নিজেদের ব্যর্থতা ও দুর্নীতির কারণে পরাজয় নিশ্চিত বুঝতে পেরেই নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের পরিবর্তে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের পাঁয়তারা করছে। এই সরকারের কাছে দেশের কোনো রাজনৈতিক দল, সাধারণ মানুষ এমনকি রাষ্ট্রও নিরাপদ নয়। নিজেদের ব্যর্থতা ও দুর্নীতি ঢাকতেই সরকার তেল-গ্যাস-বিদ্যুতের দাম দফায় দফায় বৃদ্ধি করছে।
বক্তারা আরও বলেন, দেশের অর্থনীতি আজ বিপর্যস্ত, নাগরিকের অধিকার উপেক্ষিত ও আইনের শাসন অনিশ্চিত। তাই ১৮ দলের এ হরতাল কর্মসূচি দেশের মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য। গণতন্ত্রকে সুসংহত করার জন্য, মানুষের মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য। এ সময় তারা রাজশাহীর সব স্তরের বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোটের সব নেতাকর্মীকে আজকের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল স্বতঃস্ফূর্তভাবে পালনের আহ্বান জানান। এতে বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।
বরিশাল : বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার এমপি বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করে শেখ হাসিনা আবার ক্ষমতায় যাওয়ার শেষ ইচ্ছা বাস্তবায়ন করতে পারবেন না। আগামী নির্বাচনে এ সরকারের সন্ত্রাস, সীমাহীন দুর্নীতি-লুটপাটের সমুচিত জবাব দিয়ে তাদের ইতিহাসের আঁস্তাকুড়ে নিক্ষেপ করা হবে। আজ দেশব্যাপী ১৮ দলের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতালের সমর্থনে গতকাল বিকালে দলীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। সরকারের সীমাহীন দুর্নীতি সামাল দিতে তেলের মূল্য বৃদ্ধি করায় নিত্যপ্রয়োজনীয় সব কিছুরই মূল্য বেড়ে গেছে। কিন্তু মানুষের বেতন-ভাতা ও আয় বাড়েনি। তেলের দাম না বাড়িয়ে বিভিন্ন সমস্যা দূর করে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান সরোয়ার। মহানগর বিএনপির সম্পাদক কামরুল আহসান শাহিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বরিশাল-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ, মহানগর জামায়াতের আমির অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জম হোসাইন হেলাল, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শাহেদ আকন সম্রাট, জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাসুদ হাসান মামুন, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমান মঞ্জু প্রমুখ। সমাবেশ শেষে নগরীতে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।
খুলনা : জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে খুলনায় ১৮ দলীয় জোটের উদ্যোগে গতকাল বিকালে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তারা সরকারকে ব্যর্থ, অকার্যকর ও গণবিরোধী আখ্যায়িত করে বলেন, এদের আর এক মুহূর্ত ক্ষমতায় থাকার কোনো নৈতিক অধিকার নেই। দেশের মানুষ ক্ষোভে ফুঁসছে উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, জ্বালানির বিস্ফোরণেই আওয়ামী মহাজোট সরকারের গদিতে পতনের আগুন জ্বলে উঠবে।
বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও ১৮ দলীয় জোটের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম মঞ্জু এমপির সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাই। বক্তব্য রাখেন জেলা জামায়াতের আমির মাওলানা এমরান হুসাইন, বিএনপি নেতা মনিরুজ্জামান মনি, সাহারুজ্জামান মোর্তুজা, সৈয়দা নার্গিস আলী, জাগপার মহানগর সভাপতি সালাউদ্দিন মিঠু, খেলাফত মজলিসের মহানগর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা নাসির উদ্দিন, মুসলিম লীগের মহানগর সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আখতার জাহান রুকু, অ্যাডভোকেট গাজী আবদুল বারী, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশারফ হোসেন, জলিল খান কালাম, জাফর উল্লাহ খান সাচ্চু, অ্যাডভোকেট ফজলে হালিম লিটন, রেহানা ঈসা, জামায়াত নেতা জিএম শফিকুল ইসলাম, ফখরুল আলম, আমির এজাজ খান, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, শেখ আমজাদ হোসেন, আরিফুজ্জামান অপু, মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আবদুর রশীদ, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, শফিকুল আলম তুহিন, আজিজুল হাসান দুলু, আবদুর রহিম বক্স দুদু, আবদুর রহমান আবদার, অ্যাডভোকেট একে শহিদুল আলম, আরিফুজ্জামান আরিফ, কামরান হাসান প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, দেশ পরিচালনায় ব্যর্থ ওয়াদা খেলাপি সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে বাকশালী স্টাইলে জুলুম ও নির্যাতন শুরু করেছে।
গ্রেফতার ১০ : জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ১৮ দলীয় জোটের হরতাল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে খুলনায় পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় আছে। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে নগরীর বিভিন্ন স্থানে পুলিশের একাধিক টিম সাঁড়াশি অভিযান শুরু করে। এ সময় বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের ৮ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অনেকের বাড়িতে তল্লাশির সময় তাদের বাড়িতে না পেয়ে পুলিশ আসবাবপত্র ভাংচুর ও তছনছ করেছে এবং পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে চরম দুর্ব্যবহার করেছে বলে অভিযোগ করেছেন মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু এমপি।
পুলিশি অভিযানে গ্রেফতারকৃতরা হলেন সদর থানা এলাকার মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা শেখ আবদুল গফফার, যুবদল নেতা হারুন অর রশীদ মাসুম, ছাত্রদল নেতা মহিউদ্দিন প্রিন্স, খালিশপুর থানা এলাকার ৯নং ওয়ার্ড বিএনপির সহ-সভাপতি আবুল বাশার, যুগ্ম সম্পাদক আবদুর রউফ, তাঁতী দল নেতা দেলোয়ার হোসেন, যুবদল নেতা মসিউর রহমান ও খানজাহানআলী থানা এলাকার আটরা গিলেতলা ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন। এছাড়া পুলিশ রফিকুল ইসলাম ও সমুন নামে দুই বিএনপি কর্মীকে আটক করে নিয়মিত মামলায় গ্রেফতার দেখিয়েছে।
সিলেট : তেল, গ্যাস, ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্য বৃদ্বির প্রতিবাদে ১৮ দলীয় জোটের ডাকে আজকের সকাল-সন্ধ্যা হরতালের সমর্থনে বিএনপি সিলেট জেলা শাখার উদ্যোগে গতকাল বিকালে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল-পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি দিলদার হোসেন সেলিম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুল গফফার, বিএনপি নেতা মখন মিয়া, ময়নুল হক চৌধুরী, মজাহিদ আলী, আলী আহমদ, মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, ফরহাদ চৌধুরী শামীম, ফখরুল ইসলাম ফারুক, নাজিম উদ্দিন লস্কর, একেএম তারেক কালাম, তাজুরুল ইসলাম তাজুল, যুবদল নেতা সৈয়দ মিনহাদ উদ্দিন মুছা, কাজী মুহিবুর রহমনা, জাকির হোসেন, মতিউল বারী খুর্শেদ, আবদুস সহিদ, আজিজুল হোসেন আজিজ প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার দেশ পরিচালনায় ব্যর্থ হয়ে বারবার তেল ও গ্যাসের দাম বৃদ্বি করছে। সরকার তেল, গ্যাস, ডিজেল এবং কেরোসিনের মূল্য বৃদ্বি করে তাদের পতনকে ত্বরান্বিত করল।
জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি : জাগপার কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট জেলা সভাপতি মকসুদ হোসেন জ্বালানি তেলের বারবার মূল্য বৃদ্ধির তীব্র নিন্দা করে বলেন, মহাজোট সরকারের সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থতায় জাতি এর মাশুল দিতে পারে না। তিনি আজকের ১৮ দলীয় জোট ঘোষিত সকাল-সন্ধ্যা হরতাল কর্মসূচি স্বতঃস্ফূর্তভাবে পালন করার জন্য আহ্বান জানান।
তিনি গতকাল হরতালের সমর্থনে বিকালে চৌহাট্টা পয়েন্টে জাগপা জেলা ও মহানগর শাখা আয়োজিত হরতাল-পূর্ব এক প্রতিবাদ সভায় সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন।
জেলা সাধারণ সম্পাদক তারেক আহমদ বিলাসের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জাগপার সমন্বয়কারী, ছাতক-দোয়ারার জননেতা আমিনুল ইসলাম বকুল, জেলা জাগপার সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহিদুর রহমান জুনু, জেলা সহ-সভাপতি আবদুল আলিম হান্নান, নগর জাগপার আহ্বায়ক আবদুল মোতাওয়াল্লী ফলিক, জেলা জাগপার সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক দীপক দত্ত দীপু, যুগ্ম আহ্বায়ক ও জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক আফসারুজ্জামান আফসার, জেলা জাগপার অর্থ সম্পাদক রেজওয়ানুল করিম রেজওয়ান প্রমুখ।
চট্টগ্রাম : জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতালের সমর্থনে চট্টগ্রামে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হয়েছে।
হরতালের সমর্থনে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সমাবেশ দলীয় কার্যালয় চত্বরে নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা আজকের হরতালে বাধা দিলে লাগাতার হরতালের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। বিএনপি সবসময় শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করে, কিন্তু সরকার বিএনপিকে হরতালের দিকে ঠেলে দিয়েছে। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারণে বিপর্যস্ত জনজীবনের ওপর সরকার নতুন করে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি করে দেশবাসীকে চরম দুর্ভোগে ফেলে দিয়েছে। তাই হরতাল সফল করার জন্য তিনি সর্বস্তরের নেতাকর্মীর প্রতি আহ্বান জানান।
সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন হরতাল সর্বাত্মকভাবে সফল করার জন্য চট্টগ্রামবাসীসহ দলের সব পর্যায়ের নেতাদের রাজপথে থেকে হরতাল সফল করে চলমান আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান জানান।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন এএম নাজিম উদ্দিন, পেশাজীবী নেতা জাহিদুুল করিম কচি, বিএনপি নেতা শেখ নুরুল্লাহ বাহার, কাজী বেলাল, মোশারফ হোসেন, দিপ্তি, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, মনোয়ারা বেগম মনি, জেলী চৌধুরী, অ্যাডভোকেট সরওয়ার সাত্তার, মোশারফ হোসেন ডিপটি, সিহাব উদ্দিন মোবিন, একেএম পেয়ারু, কামরুল ইসলাম, হেলাল চৌধুরী, গাজী সিরাজ, আকবর হোসেন, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, জিয়াউর রহমান জিয়া, ইউনুছ চৌধুরী হাকিম, নুরুল কবির শাহীন, কামাল উদ্দিন, আজাদ বাঙালি, আরশাদুর রহমান টিপু, মাঈনুদ্দীন পারভেজ প্রমুখ নেতা।
এদিকে চট্টগ্রাম জাগপার উদ্যোগে আগ্রাবাদে জাগপার আবু মুজাফ্ফর মোহাম্মদ আনাছের নেতৃত্বে মিছিল বের করে। এতে সানা উল্লাহ সানি, সাহেদ ছিদ্দিকী ও নুরুল আবছার তালুকদার উপস্থিত ছিলেন। লেবার পার্টির উদ্যোগে সমাবেশে মহানগর সভাপতি আলাউদ্দিন, তসলিম কোম্পানি, আবু হানিফ ও মো. ইলিয়াস বক্তব্য রাখেন। বক্তারা হরতালের মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।
চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ছাত্রদলের উদ্যোগে ষোলশহর এলাকায় মিছিলের নেতৃত্ব দেন জমির উদ্দিন নাহিদ। এছাড়া জামায়াত এবং শিবিরও আতুরার ডিপো এলাকায় হরতালের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল বের করে।
বগুড়া অফিস : বগুড়ায় ১৮ দলীয় জোটের সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিক্ষোভ মিছিল-পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম। সমাবেশে আরও বক্তৃতা করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চান, মোস্তফা আলী মুকুল এমপি, মীর শাহে আলম, ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, রেজাউল করিম বাদশা, আলহাজ মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, মাহবুবর রহমান বকুল, আবদুর রশিদ শেখ, হামিদুল হক চৌধুরী হিরু, অ্যাডভোকেট নাজমুল হুদা পপন, সহিদ-উন-নবী সালাম, মাহফুজুর রহমান রাজু, সিপার আল বখতিয়ার, মেহেদী হাসান হিমু, আরাফাতুর রহমান আপেল, অ্যাডভোকেট আবদুল বাছেদ, জামায়াতের মাজেদুর রহমান জুয়েল, জাগপার মোখলেছুর রহমান, জাপা বিজেপির বাবলু জোয়ারদার।
সমাবেশে ভিপি সাইফুল ইসলাম বলেন, ভর্তুকির দোহাই দিয়ে নববর্ষের শুরুতে সরকার জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি করে দেশের মানুষের জীবনযাত্রায় লাগামহীন দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির দিকে ঠেলে দিয়েছে।
যশোর : আজকের হরতাল সফলের লক্ষ্যে যশোরে গণসমাবেশ করেছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট। শহরের দড়াটানা ভৈরব চত্বরে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি রফিকুর রহমান তোতনের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি মাস্টার নূরুন্নবী, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন খোকন, খেলাফত মজলিস নেতা হাফেজ মাওলানা আবদুল্লাহ, জাগপা নেতা নিজামউদ্দিন অমিত প্রমুখ।
সমাবেশে বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান খান, কাজী আজম, আবদুস সালাম আজাদসহ ১৮ দলীয় জোটের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশ শেষে শহরে একটি মিছিল বের করা হয়।
নারায়ণগঞ্জ : হরতালের সমর্থনে নারায়ণগঞ্জে বিএনপির মিছিলে বাধা দিয়েছে পুলিশ। পুলিশের বাধার কারণে হরতালের সমর্থনে সমাবেশ শেষে বের হওয়া মিছিল বেশি দূর এগুতে পারেনি। তবে একটি অংশ পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে মিছিল নিয়ে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে চলে আসে।
গতকাল বিকালে শহরের ২নং রেলগেটের বিএনপি কার্যালয়ের সামনে হরতালের সমর্থনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। নগর বিএনপির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার, আনোয়ার হোসেন খান, জামাল উদ্দিন কালু, এটিএম কামাল, অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন, মুন্সি শামসুর রহমান খান বেনু, যুবদল নেতা কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, হাজী শাহিন, নুরুল হক চৌধুরী দিপু প্রমুখ।
কালিয়াকৈর : বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের আহ্বানে দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতালের সমর্থনে গতকাল বিকালে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয় থেকে একটি বিশাল মিছিল বের হয়। মিছিলটি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে ঢাকা-টাঙ্গাইল বাইপাস সড়কে পৌঁছলে পুলিশের লাঠিচার্জে কমপক্ষে ৩৫ জন আহত হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ২ জনকে আটক করে। বিএনপি দলীয় সূত্র জানায়, সকাল-সন্ধ্যা হরতালের সমর্থনে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা কাজী সাইয়্যেদুল আলম বাবুল, হুমায়ুন কবীর খান ও মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে একটি শান্তিপূর্ণ মিছিল বের করে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বাইপাস এলাকায় পৌঁছলে আগে থেকে ওঁেপতে থাকা পুলিশ বিনা উসকানিতে মিছিলে থাকা নেতাকর্মীদের ওপর লাঠিচার্জ শুরু করে। এ ঘটনায় পৌর ছাত্রদল সভাপতি আমজাদ হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি রায়হান, ছাত্রনেতা পারভেজ, আতিক, সুজন ও ইসমাইলসহ কমপক্ষে ৩৫ জন আহত হন। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ২ জনকে আটক করে নিয়ে যায়।
মনোহরগঞ্জ : জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির আহূত রোববারের হরতালের সমর্থনে গতকাল মনোহরগঞ্জ উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসএম মনছুরের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কামাল হোসেন বুলু, চেয়ারম্যান শহিদ উদ্দিন, আলমগীর হোসেন বিএসসি, মঞ্জুর আলম মজনু, মোস্তফা, মাসুদ আলম বাচ্চু, আহসান হাবিব, আবুল বাশার, মোজাম্মেল, মোহাম্মদ উল্যা, মনির হোসেন, আবুল খায়ের, আলাউদ্দিন, ইউসুফ, ওমর ফারুক, শাহ আলম, আমান উল্যা, ইসমাইল, সাইফুদ্দিন মাহমুদ লিটন, মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, রহমত উল্যা জিকু, ওয়াদুদ, মহসীন, আহসান, কামাল, মনির, মাসুম, বোলন, মজিদ, মিজান প্রমুখ।