Amardesh
আজঃঢাকা, রোববার ৬ জানুয়ারি ২০১৩, ২৩ পৌষ ১৪১৯, ২৩ সফর ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

রফতানি খাতে জ্বালানি তেলের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার দাবি ইএবি’র

অর্থনৈতিক রিপোর্টার
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
রফতানিমুখী শিল্প খাতগুলোতে জ্বালানি তেলের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইএবি)। গতকাল এক বিবৃতিতে এ দাবি জানিয়েছে সংগঠনের প্রেসিডেন্ট আবদুস সালাম মুর্শেদী। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, জ্বালানি তেলের দর বাড়ানোর সিদ্ধান্তে রফতানিমুখী শিল্প খাতে, বিশেষ করে পোশাক শিল্প খাত নতুন করে সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে লিটারপ্রতি ডিজেলের দাম ৭ টাকা, পেট্রলের দাম ৫ টাকা এবং অকটেনের দাম ৫ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এর প্রতিক্রিয়ায় ইএবি বলে, সরকারের এ সিদ্ধান্তে রফতানিমুখী শিল্প খাত আরও সমস্যার আবর্তে পড়ে গেল। বিদ্যুত্ সরবরাহ কম হওয়ায়, শিল্প ইউনিটগুলোতে ক্যাপটিভ জেনারেটর ব্যবহার করে বিদ্যুত্ উত্পাদনের মাধ্যম ফ্যাক্টরি চালু রাখতে হয়। ক্যাপটিভ জেনারেটরে জ্বালানি হিসেবে ডিজেলও ব্যবহৃত হয়ে থাকে। অথচ এই ডিজেলের মূল্যও লিটারপ্রতি ৭ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে।
বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দফায় দফায় জ্বালানি তেল, বিদ্যুত্, গ্যাস, ফ্যাক্টরি স্থাপনা ভাড়া, উেস কর, আয়কর, আমদানি শুল্ক, ব্যাংকের সুদহার বৃদ্ধিসহ কাঁচামাল আমদানি ও রফতানি পণ্য
পরিবহন খাতে ভাড়া বৃদ্ধি পাওয়ায় উত্পাদন খরচ আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতিযোগী দেশের রফতানি মূল্য তুলনামূলকভাবে কম হওয়ায় লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে
ব্যর্থ হচ্ছে।
বিবৃতিতে বলা হয়, ইউরোপ-আমেরিকায় প্রথম মন্দা কাটিয়ে ওঠার পরপরই শুরু হয়েছে দ্বিতীয় মন্দা, যা এখনও চলমান। ইউরো-জোনের প্রকট ঋণ-সঙ্কট থাকা অবস্থায় নতুন করে শুরু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আর্থিক-সঙ্কট ‘ফিসক্যাল ক্লিফ’। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একক দেশ হিসেবে দ্বিতীয় বৃহত্তম বাজার। বর্তমানে আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি। এর ফলে রফতানি কমে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।