Amardesh
আজঃঢাকা, সোমবার ৩১ ডিসেম্বর ২০১২, ১৭ পৌষ ১৪১৯, ১৭ সফর ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

কর ও ঋণখেলাপের কারণে বাদ পড়েছেন শীর্ষ করদাতারা : দুই ক্যাটাগরিতে ট্যাক্স কার্ড পাচ্ছেন ২০ জন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ২০০৯-১০ অর্থবছরে সর্বোচ্চ করদাতা হিসেবে ব্যক্তি ও করপোরেট ক্যাটাগরিতে ২০ জনকে ‘ট্যাক্স কার্ড’ প্রদান করবে। কিন্তু কর খেলাপি, ঋণখেলাপি ও কর সংক্রান্ত নানা মামলার অভিযোগে পুরস্কারের এ তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন সর্বোচ্চ করদাতা ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান। আজ বিকালে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচিত করদাতাদের হাতে কার্ড তুলে দেবেন অর্থমন্ত্রী।
এনবিআরের প্রস্তুতকৃত তালিকা অনুযায়ী ব্যক্তি পর্যায়ে সবচেয়ে বেশি কর প্রদানকারী নির্বাচিত হয়েছেন রংপুরের মোতাজ্জেরুল ইসলাম। এছাড়া ব্যক্তি পর্যায়ে শীর্ষ ১০ জনের মধ্যে মাত্র দু’টি প্রতিষ্ঠানেরই রয়েছেন ৬ জন করদাতা। ট্যাক্স কার্ড পাওয়া এটিএল লিমিটেড কোম্পানির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ৪ ব্যক্তি হচ্ছেন এমএম আমজাদ হোসেন, মোহাম্মদ ইউসুফ, এমএ হায়দার হোসেন ও লায়লা হোসেন। একে খান অ্যান্ড কোম্পানি লিমিটেডের দু’জন কার্ডপ্রাপ্ত হলেন সালাউদ্দিন কাসেম খান ও এএম জিয়াউদ্দিন খান। এছাড়া ব্যক্তি পর্যায়ে ট্যাক্স কার্ড পাচ্ছেন ইকবাল হায়দার চৌধুরী, মো. কাউস মিয়া এবং মোতাহের হোসেন।
করপোরেট করদাতা ক্যাটাগরিতে ২০০৯-১০ অর্থবছরে ১৩৮ কোটি টাকা কর দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক কোম্পানি শেভরন বাংলাদেশ ব্লক-১২ তালিকার শীর্ষে রয়েছে। এছাড়া কার্ডপ্রাপ্ত অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে সিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেড, সিটিব্যাংক এনএ, আমেরিকাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড, ট্রাস্ট ব্যাংক, দি সিকিউরিটি প্রিন্টিং করপোরেশন বাংলাদেশ লিমিটেড, বাংলাদেশ এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোন অথরিটি, যমুনা ব্যাংক, একে খান অ্যান্ড কোম্পানি এবং বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম এক্সোপ্লোরেশন অ্যান্ড প্রোডাক্টশন কোম্পানি (বাপেক্স)। আজ বিকাল ৩টায় অফিসার্স ক্লাবে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নির্বাচিতদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে কার্ড তুলে দেবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এছাড়া অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন, এফবিসিসিআই সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদসহ এনবিআর সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন।
তবে প্রকৃতপক্ষে এমন করদাতা ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা নির্বাচিত করদাতাদের তুলনায় অনেক বেশি কর পরিশোধ করে থাকেন। নিয়মিত কর পরিশোধ না করা, কর ফাঁকি দেয়া, ঋণ খেলাপি, কর বা ঋণ সম্পর্কিত মামলা থাকা বা ফৌজদারি মামলার আসামি এমন করদাতা ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান নিয়মানুযায়ী কার্ড পায়নি বলে জানিয়েছে এনবিআর। এনবিআর সদস্য (কর প্রশাসন ও মানব সম্পদ বিভাগ) এমএ কাদের সরকার বলেন, অনেক বেশি কর দিয়েও অনেকেই পুরস্কার পাচ্ছেন না, কারণ তারা এনবিআর আইন অনুযায়ী নিখুঁত করদাতা নয়। আইন অনুযায়ী কর ফাঁকিবাজ, ঋণখেলাপি, যে কোনো ধরনের মামলার আসামিরা তালিকায় স্থান পাবে না। এসব যাচাই-বাছাই করতে গিয়েই মূলত ২০০৯-১০ অর্থবছরের করদাতাদের কার্ড এত পরে দেয়া হচ্ছে।