এখনও ৭০ ভাগ প্রসূতি মায়ের বাসায় প্রসব হয় : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার « আগের সংবাদ
পরের সংবাদ» ২৬ ডিসেম্বর ২০১২, ১৪:১৪ অপরাহ্ন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আফম রুহুল হক বলেছেন, এখনও শতকরা ৭০ ভাগ প্রসূতি মায়ের বাসায় প্রসব হয়ে থাকে। যা ঝুঁকির মধ্যে রয়ে যায়। তবে এই ৭০ ভাগ প্রসূতি মাকে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এনে নিরাপদ প্রসবসেবা দেয়া সম্ভব নয়। বাসায় কীভাবে তাকে নিরাপদ প্রসবসেবা দেয়া যায় এ বিষয়ে ভাবতে হবে। গতকাল রাজধানীর রূপসী বাংলা হোটেলে আয়োজিত ইউনিয়ন পর্যায়ে নিরাপদ প্রসব শীর্ষক কর্মশালায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
কর্মশালায় বলা হয়, সারাদেশে প্রতিটি ইউনিয়নে ৩ হাজার ৮৬০টি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে নিরাপদ প্রসবসেবা জোরদার করা হয়। গত জানুয়ারিতে দেশের প্রতিটি উপজেলায় কমপক্ষে একটি করে সর্বমোট ৫৫৯টি মান-উন্নীত ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে নিরাপদ প্রসবসেবা প্রদান করার কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। এর মধ্যে নিরাপদ প্রসবের ক্ষেত্রে এ কর্মসূচি ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। গত ১০ মাসে ৩২ হাজার ১২৩ জন মাকে নিরাপদ প্রসবসেবা প্রদান করা হয়েছে। এ জনসংখ্যার মধ্যে রয়েছে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের দরিদ্র জনগোষ্ঠী।
কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. খন্দকার মো. সিফায়েতউল্লাহ, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান, পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের মহাপরিচালক একেএম আমির হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের এমসিএইচ-সার্ভিসেস ইউনিটের পরিচালক ডা. মোহাম্মদ শরীফ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. হুমায়ুন কবির।
অনুষ্ঠানে সর্বোচ্চ নিরাপদ প্রসবসেবা প্রদান করার জন্য প্রতিটি বিভাগ থেকে একটি করে মোট সাতটি মান-উন্নীত ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রকে এবং এ কার্যক্রমে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

শেষের পাতা এর আরও সংবাদ

সাপ্তাহিকী


উপরে

X