Amardesh
আজঃঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ ডিসেম্বর ২০১২, ১৩ পৌষ ১৪১৯, ১৩ সফর ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

রাজশাহীতে শাহ মখদুম থানার ওসির অনৈতিক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ-সমাবেশ

রাজশাহী অফিস
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
রাজশাহী মহানগরীতে বিরোধী দলের সরকারবিরোধী আন্দোলন কর্মসূচি ঠেকাতে ১৮ দলের নেতাকর্মীদের ধরপাকড়ের নামে সাধারণ মানুষের ওপর অমানুষিক নির্যাতন ও ভয়ভীতি দেখিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে পুলিশ। ভালো-মন্দ বিচার না করেই পুলিশ সাধারণ মানুষকে ধরে নিয়ে বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে জেলহাজতে পাঠাচ্ছে।
এছাড়া এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে শাহ মখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিনা অপরাধে যুবকদের থানায় ধরে এনে পরিবারের কাছে খবর পাঠিয়ে নির্যাতন ও মামলার ভয় দেখিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলেন অভিযোগ উঠেছে।
গতকাল বিকালে নওদাপাড়া বাজারে শাহ মখদুম থানা এলাকাবাসীর ব্যানারে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) শামসুল আরেফিনের অবৈধ কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হয়েছে। সমাবেশে বক্তারা বলেন, বর্তমান ওসি শাহ মখদুম থানায় আসার পর সরকারবিরোধী অবরোধ-পিকেটিংয়ের লোক ধরার নামে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ধরে এনে থানা হাজতে নিয়ে নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়া হয় অথবা আরএমপি ধারায় কোর্টে চালান দেন। কোনো অসহায় ব্যক্তি যদি টাকা দিতে না পারে তাকে শিবির বা জামায়াত বানিয়ে কোর্টে চালান দেয়া হয়।
বক্তারা আরও বলেন, সম্প্রতি বায়া বাজারে গত ১৫ দিনের মধ্যে ছাত্রলীগ কর্মীসহ সাধারণ ছাত্রদের ধরে নিয়ে এসে পরিবারের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে কয়েকজনকে ছেড়ে দেয়া হয়। এছাড়া কয়েকজন সাধারণ ছাত্রকে ধরে নিয়ে এসে শিবিরি বানিয়ে কোর্টে চালান দেয়া হয়।
বক্তারা অভিযোগ করে আরও বলেন, ওসি শামসুল আরেফিনের নামে ৪টি বিভাগীয় মামলা রয়েছে। ঢাকায় ডিবিতে থাকাকালীন হুন্ডির টাকা আত্মসাত্ করার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও নওগাঁর নিয়ামতপুর থানায় থাকাকালীন দুর্নীতির অভিযোগে একবার সাময়িকভাবে চাকরিচ্যুত হয়।
স্থানীয়রা শান্তিপ্রিয় এলাকায় অশান্তি সৃষ্টিকারী এ পুলিশ কর্মকর্তার অবিলম্বে অপসারণ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।
এ ব্যাপারে শাহ মখদুম থানার ওসি শামসুল আরেফিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগের বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, যারা বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে তারা বেআইনি পদ্ধতিতে করেছে। তারা আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই করেছে।