Amardesh
আজঃঢাকা, রোববার ২৫ নভেম্বর ২০১২, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪১৯, ১০ মহররম ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

কোরাম সঙ্কটে বাতিল হলো সংসদীয় কমিটির বৈঠক

সংসদ রিপোর্টার
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
কোরাম সঙ্কটের কারণে গতকাল পূর্ব নির্ধারিত বৈঠক করতে পারেনি বিদ্যুত্, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, নির্দিষ্ট সময়ে কমিটির সভাপতি সুবিদ আলী ভূঁইয়া সংসদ ভবনের এক নম্বর কমিটি কক্ষে উপস্থিত হলেও কমিটির অন্য সদস্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাত্র একজন। এ কারণে বৈঠক বাতিল করে ২৬ নভেম্বর নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়। জানা গেছে, সরকারি কর্মকর্তাদের ইনডেমনিটি দিয়ে প্রণীত বিদ্যুত্ ও জ্বালানি দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) (সংশোধন) বিল-২০১২টি চলতি অধিবেশনেই পাস করার বাধ্যবাধকতা থাকায় বিলের ওপর রিপোর্ট চূড়ান্ত করতে গতকাল ছুটির দিন শনিবার এ বৈঠক আহ্বান করা হয়। এজন্য কমিটির সভাপতি তার নির্বাচনী এলাকায় পূর্বনির্ধারিত সব কর্মসূচি বাতিলকরেন। কমিটি কক্ষে পৌঁছে তিনি প্রায় একঘণ্টা কমিটির অন্য সদস্যদের জন্য অপেক্ষা করলেও আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব ছাড়া অন্য কেউ উপস্থিত না থাকায় তিনি ক্ষুব্ধ হন। পরে তিনি বৈঠকের তারিখ ২৬ নভেম্বর পুনর্নির্ধারণ করেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে কমিটির সভাপতি সুবিদ আলী ভূঁইয়া সাংবাদিদের বলেন, বৈঠক আহ্বান করে সব সদস্যকে ফোনও করা হয়েছিল। কিন্তু একজন ছাড়া কেউ যাননি। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।
এদিকে গতকাল অনুষ্ঠিত অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে কর অব্যাহতিতে রাজস্ব বোর্ডের একচ্ছত্র ক্ষমতা খর্ব করে তা সংসদের কাছে দেয়ার সুপারিশ করে মূল্য সংযোজন কর বিল-২০১২-এর রিপোর্ট চূড়ান্ত করা হয়েছে।
গত ৮ জুলাই বিলটি সংসদে উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। পরে এটি পরীক্ষা করে সংসদে রিপোর্ট দেয়ার জন্য সংসদীয় কমিটিতে পাঠানো হয়। গত ১৩ সেপ্টেম্বর কমিটি এ সম্পর্কে সংসদে রিপোর্ট দেয়। পরে গত ১৯ নভেম্বর বিলটি আবার পরীক্ষা করে রিপোর্ট দেয়ার জন্য সংসদীয় কমিটিতে পাঠানো হয়।
সংসদে উত্থাপিত বিলের ১১৯ ধারায় বলা হয়েছে, জনস্বার্থে বা জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য সরকার তথা এনবিআর নির্দিষ্ট মেয়াদের জন্য করের আংশিক বা সম্পূর্ণ অব্যাহতি দিতে পারবে।
এ বিষয়ে সংসদীয় কমিটির সভাপতি আ হ ম মোস্তফা কামাল (লোটাস কামাল) বলেন, বিলটি উত্থাপনের পর আইএমএফ বিষয়টি সরকারের দৃষ্টিতে আনে। এ জন্য বিলটি পরীক্ষা করে আবার রিপোর্ট দেয়ার জন্য কমিটিতে পাঠানো হয়। এছাড়া বৈঠকে সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন (সংশোধন) বিল-২০১২ এবং সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০১২ চূড়ান্ত করা হয়।
লোটাস কামালের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য মো. তাজুল ইসলাম, এমএ মান্নান ও ফরিদা রহমান বৈঠকে অংশ নেন।