Amardesh
আজঃঢাকা, রোববার ২৫ নভেম্বর ২০১২, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪১৯, ১০ মহররম ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২ টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

রাষ্ট্রীয় ক্ষমার সুযোগ নিয়ে লক্ষ্মীপুরে তাহের পরিবার সন্ত্রাসের পথ বেছে নিয়েছে : এ্যানী

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
কেন্দ্রীয় বিএনপির ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী বলেছেন, রাষ্ট্রীয় ক্ষমার সুযোগ নিয়ে লক্ষ্মীপুরে তাহের পরিবার আবারও সন্ত্রাসের পথ বেছে নিয়েছে। তারই ধারাবাহিকতা গত শুক্রবার বিকেলে প্রথম আলোর সাংবাদিক এম জে আলমের ওপর হামলা করা হয়েছে। এ হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানান তিনি। গতকাল বিকেলে লক্ষ্মীপুর জেলা শহরের নিজ বাসভবনে বিএনপির দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলামের খুনিদের দণ্ড মওকুফ করে সন্ত্রাসীদের উত্সাহিত করেছেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা শাহ মোহাম্মদ এমরান, ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বাচ্চু, ছাত্রদল নেতা মাহাবুব আল মামুন ও শ্যামল প্রমুখ।
উল্লেখ্য, শুক্রবার শহরের দক্ষিণ তেমুহানীস্থ ডিসি কলোনিতে পৌর মেয়র আবু তাহের গণপূর্ত বিভাগের জমির ওপর বর্তমানে পৌরসভার পক্ষ থেকে প্রস্তাবিত নিউ পৌর মার্কেটের একটি সাইনবোর্ড ওই স্থানে লাগিয়ে দেয়। এ খবর পেয়ে প্রথম আলো প্রতিনিধি এম জে আলম সংবাদ ও ছবি সংগ্রহ করতে ঘটনাস্থলে গেলে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র আবু তাহের ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারধর করে। এক পর্যায়ে জোরপূর্বক তার গাড়িতে তুলে নিয়ে নছির আহম্মদ ভূইয়া মিলনায়তনে আধাঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখেন।
এদিকে চার সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে গতকাল বিকেলে স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে জেলার কর্মরত সাংবাদিকদের এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সভায় বক্তারা অবিলম্বে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাঁদাবাজি ও হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। এ সময় বক্তব্য রাখেন মো. কাউছাত, সেলিম উদ্দিন নিজামী, আবদুল মালেক, আব্বাছ হোসেন, হাবিবুর রহমান সবুজ, মাজাহারুল আনোয়ার টিপু, জাহাঙ্গীর হোসেন লিটন প্রমুখ। বেলাল হোসেন বাদী হয়ে ওই মামলা করেন।