ফতুল্লা থেকে অপহৃত শিশু গাজীপুরে উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ « আগের সংবাদ
পরের সংবাদ» ২৪ নভেম্বর ২০১২, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

১০ লাখ টাকা মুক্তিপণের দাবিতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থেকে অপহরণের ১৪ ঘণ্টা পর গাজীপুর জেলার কাশীমপুর থেকে অপহৃত শিশু সুমাইয়া আক্তার তিশাকে (৫) উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুর ২টায় তিশাকে তাদের বাড়ির ভাড়াটে আবদুর রশিদ মেলায় নিয়ে যাওয়ার প্রলোভনে অপহরণ করে নিয়ে যায়। গতকাল ভোর ৪টায় অপহৃত তিশাকে উদ্ধার এবং অপহরণকারী আবদুর রশিদকে গ্রেফতার করে ফতুল্লা থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। ওই ঘটনায় রশিদের আরও ২ সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অপহৃত তিশা ফতুল্লার পাগলা শাহী বাজার এলাকার তাজুল ইসলাম মিন্টুর মেয়ে এবং স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেনের শিশুশ্রেণীর ছাত্রী। ফতুল্লা মডেল থানার এসআই নাজমুল হুদা জানান, শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে তিশাকে তাদের ভাড়াটে আবদুর রশিদ মেলায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। এরপর তিশাকে নিয়ে যাওয়া হয় গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর থানার কাশিমপুর এলাকায় রশিদের বোন মনোয়ারার বাড়িতে। বোনের বাড়িতে যাওয়ার আগে রশিদ মোবাইল ফোনে ফোন করে তিশার বাবা মিন্টুর কাছে মেয়ের মুক্তিপণ হিসেবে ১০ লাখ টাকা দাবি করে। এতে বোন মনোয়ারার সন্দেহ হলে তার বাড়িওয়ালা হাজি আলমগীরকে জানান। হাজি আলমগীর ঘটনা শুনে রশিদকে ওই বাড়িতে আটক করে রাখেন এবং বিষয়টি তিশার বাবাকে জানান। তিশার বাবা ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশকে ঘটনা জানিয়ে তাকে সহায়তার অনুরোধ করেন। পরে পুলিশ গাজীপুর জেলার জয়দেবপুরের কাশীমপুরে হাজি আলমগীরের বাড়ি থেকে আবদুর রশিদকে আটক এবং শিশু তিশাকে উদ্ধার করে।

সাপ্তাহিকী


উপরে

X