Amardesh
আজঃঢাকা, শনিবার ২৪ নভেম্বর ২০১২, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪১৯, ৯ মহররম ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২.০০টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

মহররমের প্রস্তুতি মিছিলে হামলা : আহত ১০

স্টাফ রিপোর্টার
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
পবিত্র আশুরার প্রস্তুতিতে গতরাতে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোড এলাকায় মহররমের তাজিয়া মিছিলের মহড়ায় একদল সন্ত্রাসীর হামলায় ১০ জন আহত হয়েছে। রাত সাড়ে আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে পাঁচজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা হলেন ফয়সাল (১৫), রাসেল (১৮), আপন (১৭), সোহাগ (২০) ও রাশেদ (১৯)। এদের মধ্যে আপনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। কে বা কারা এ হামলা চালিয়েছে, তা জানা যায়নি।
পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্র জানায়, সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে হোসনি দালান থেকে একটি তাজিয়া মিছিল বের হয়। মিছিলটি বখশীবাজার, উর্দু রোড ও চকবাজার হয়ে হোসনি দালানে যাওয়ার পথে নাজিমুদ্দিন রোডের শেখ বোরহানউদ্দিন পোস্ট গ্র্যাজুয়েট বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সামনে পৌঁছলে দুষ্কৃতকারীরা অতর্কিতে হামলা চালায়। এ সময় মিছিল ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় এবং মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়ে। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিলে মিছিল আবার শুরু হয়ে হোসনি দালানে ফিরে যায়। এ হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে পাঁচজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এ ঘটনার পর ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
আহত রাশেদ জানায়, গতরাতে নাজিমুদ্দিন রোডের বোরহানউদ্দিন কলেজের সামনে আমি দাঁড়িয়ে ছিলাম। এ সময় মহররমের একটি বড় মিছিল আসে। মিছিলে দু’পক্ষের মধ্যে হঠাত্ মারামারি শুরু হয়। মিছিলে একে অপরকে কাচের বোতল ও চাকু দিয়ে আঘাত করে। এ সময় একটি কাচের বোতল এসে আমার মাথায় লাগে। আহত আপন জানায়, মহররমের ওই মিছিলে আমিও অংশ নিই। হঠাত্ মিছিলে ইমরান নামের একটি ছেলে আমার পিঠে ছুরি ঢুকিয়ে দেয়। তবে কেন মেরেছে তা বলতে পারব না।
চকবাজার থানার ওসি মোহাম্মদ আলী জানান, ৮-১০ হাজার লোকের একটি মিছিল চকবাজার যাচ্ছিল। এ সময় বোরহানউদ্দিন কলেজের সামনে মিছিলটি পৌঁছলে তাদের নিজেদের মধ্যে অন্তর্কোন্দলের সৃষ্টি হয়। তারা নিজেদের মধ্যে মারামারি করলে কয়েকজন আহত হয়। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে তিনি জানান।