Amardesh
আজঃঢাকা, শনিবার ২৪ নভেম্বর ২০১২, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪১৯, ৯ মহররম ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২.০০টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

খনিবিরোধীদের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ : ফুলবাড়ীতে আজ সকাল সন্ধ্যা হরতাল

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
« আগের সংবাদ
এশিয়া এনার্জিকে জরিপকাজে সহায়তা করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া চিঠির প্রত্যাহারসহ সরকারের সঙ্গে খনিবিরোধী আন্দোলনকারীদের স্বাক্ষরিত ছয় দফা ফুলবাড়ী সমঝোতা চুক্তি বাস্তবায়নের দাবিতে গতকাল বিকালে স্থানীয় নিমতলা মোড়ে জনসভার ডাক দেয় দিনাজপুরের ফুলবাড়ী শাখা তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুত্ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি। কিন্তু জনসভাস্থলসহ ফুলবাড়ী পৌর শহর ও এর আশপাশ এলাকায় উপজেলা প্রশাসন বিকাল ৩টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ১৪৪ধারা জারি করে ব্যাপকসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করে। ১৪৪ ধারা জারির পরপরই ফুলবাড়ী শহরজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে দোকানপাটসহ সব ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়।
বিকাল ৩টার আগেই সভামঞ্চসহ গোটা এলাকা নিয়ন্ত্রণে নেয় পুলিশ। এতে বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে ফুলবাড়ী কয়লাখনি অঞ্চলের সব স্তরের মানুষ। পুলিশি বাধাকে উপেক্ষা করে বিক্ষুব্ধ জনতা মিছিল-সমাবেশ শুরু করে। এ সময় সম্মিলিত পেশাজীবী সংগঠনের সমন্বয়ক ও পৌর মেয়র মুরতুজা সরকার মানিক জাতীয় কমিটির জনসভার সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে মিছিলে যোগ দেন। এতে জনতার বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা ফুলবাড়ী। ১৪৪ ধারা জারির দেড় ঘণ্টার মধ্যেই
বিকাল সাড়ে চারটায় জনতা পুলিশকে হটিয়ে সভামঞ্চসহ গোটা এলাকা দখলে নিয়ে বিকাল সাড়ে চারটায় সমাবেশ শুরু করে। ফুলবাড়ী শাখা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম জুয়েলের সভাপতিত্বে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন তেল গ্যাস জাতীয় কমিটির কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, সিপিবি’র কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহম্মেদ, ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য বিমল বিশ্বাস, গণসংহতি আন্দোলেন সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি প্রমুখ।
সমাবেশ থেকে আজ সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ঘোষণাসহ জাতীয় কমিটির জনসভা ভণ্ডুল করার ষড়যন্ত্র করার অভিযোগ এনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কামাল মোহাম্মদ রাশেদকে ফুলবাড়ী থেকে প্রত্যাহারের দাবি জানান।
সমাবেশে পুলিশের অবরুদ্ধতার কারণে ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীদের কোটি টাকা ক্ষতি হওয়ার অভিযোগ এনে এবং সরকারের এশিয়া এনার্জিকে সহায়তার প্রতিবাদে আজ সকাল-সন্ধ্যা হরতাল আহ্বান করা হয়।
তেল গ্যাস জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, সরকার পুলিশকে এশিয়া এনার্জির লাঠিয়াল হিসেবে ব্যবহারের জন্য জনসভায় ১৪৪ ধারা জারি করে গোটা ফুলবাড়ী এলাকায় পুলিশি রাজত্ব কায়েম করার চেষ্টা করেছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, জনসভাকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতিসহ শান্তি ভঙ্গ হতে পারে—এমন আশঙ্কা থেকেই ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল।