Amardesh
আজঃঢাকা, শনিবার ২৪ নভেম্বর ২০১২, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪১৯, ৯ মহররম ১৪৩৪ হিজরী    আপডেট সময়ঃ রাত ১২.০০টা
 
 সাধারণ বিভাগ
 বিশেষ কর্ণার
 শোক ও মৃত্যুবার্ষিকী
 সাপ্তাহিক
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার : বিতর্ক এড়াতে পারবে না এবারও

এম রহমান
পরের সংবাদ»
প্রতি বছরই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষণার পর বিতর্ক বাঁধে। মনে হচ্ছে এবারও তার অন্যথা হবে না। ২০১১ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রতিযোগিতার ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও ঘোষণা করা হয়নি। তবে বিভিন্ন সূত্রে যে ফলাফল পাওয়া গেছে তাতে এবারের জুরি বোর্ডও প্রশ্নের সম্মুখীন হবে। পুরস্কারের মান নিয়ে উঠবে প্রশ্ন। মানহীন কাজকে মূল্যায়ন করায় পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ উঠবে। যথারীতি বিশেষ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের প্রতি পক্ষপাতের অভিযোগ উঠতে পারে। একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানই কেন ফি বছর সর্বাধিক পুরস্কার পাচ্ছে, তা নিয়ে এবারও কথা উঠবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। আর রাজনৈতিক বিবেচনায় পুরস্কারের বিষয়টি তো গা-সওয়া হয়ে গেছে ইন্ডাস্ট্রির। এবারও রাজনৈতিক পরিচয়ে পুরস্কার তুলে দেয়ার ঘটনা দেখার অপেক্ষায় সবাই। ভালো কাজের অভাবকে দায়ী করে ক্যাটাগরি কমিয়ে দায়মুক্ত থাকার সুযোগ কাজে না লাগানোর জন্য জুরি বোর্ডের অদূরদর্শিতা নিয়ে আলোচনা হবে। গত বছর নজিরবিহীনভাবে জুরি বোর্ডের সদস্যরাই পুরস্কার ছিনতাই করেছিলেন। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটছে এবারও। পরপর দুই বছর একই সদস্যকে জুরি বোর্ডের সদস্য মনোনীত করে বিতর্কিত জুরি বোর্ডের ঘোষিত ফলাফল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির উপর কি প্রতিক্রিয়া ফেলে, তা দেখার জন্য আর কয়েকটা দিন অপেক্ষা করতে হবে। জুরি বোর্ডের সুপারিশমালা পৌঁছে গেছে তথ্য মন্ত্রণালয়ে। শিগগিরই মন্ত্রণালয় গেজেট আকারে জাতীয় পুরস্কারের ফলাফল ঘোষণা করবে। চলতি বছরের মধ্যেই পুরস্কার প্রদানের চেষ্টা করছে সরকার।
সূত্র থেকে জানা গেছে, সেরা ছবির পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে ‘গেরিলা’। একই ছবির জন্য নাসিরউদ্দীন ইউসুফ শ্রেষ্ঠ পরিচালক, জয়া আহসান শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী, মোহাম্মদ আলী শ্রেষ্ঠ রূপসজ্জাকর, অনিমেষ আইচ শ্রেষ্ঠ শিল্প নির্দেশক মনোনীত হয়েছেন। শ্রেষ্ঠ শব্দ গ্রাহকের পুরস্কারটিও যাবে ‘গেরিলা’র ঘরে। শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হয়েছেন ফেরদৌস। ‘কুসুম কুসুম প্রেম’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য তিনি এ পুরস্কার পাচ্ছেন। শ্রেষ্ঠ সুরকার ইমন সাহা (কুসুম কুসুম প্রেম), সঙ্গীত পরিচালক হাবিব (প্রজাপতি), কণ্ঠশিল্পী কুমার বিশ্বজিত্ ও ন্যান্সি (প্রজাপতি), গীতিকার শফিক তুহিন (প্রজাপতি) মনোনীত হয়েছেন। ‘প্রজাপতি’ ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ চিত্র গ্রাহকের পুরস্কার পাচ্ছেন খায়ের খন্দকার। ‘আমার বন্ধু রাশেদ’ ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার মনোনীত হয়েছেন মুহাম্মদ জাফর ইকবাল। সেরা চিত্রনাট্যের জন্য নাসিরউদ্দিন ইউসুফের পাশাপাশি মোরশেদুল ইসলাম ও বরকতউল্লাহ মারুফ (আমার বন্ধু রাশেদ)-এর নামও এসেছে। খলনায়ক হিসেবে মিশা সওদাগর ও শতাব্দী ওয়াদুদ (গেরিলা)-এর নাম পাওয়া গেছে। শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পী হিসেবে পুরস্কারের জন্য ‘খণ্ডচিত্র-৭১’-এর জন্য সেমন্তিকে মনোনয়ন করা হয়েছে। এ বছরও শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব-অভিনেতার পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন আলমগীর (কে আপন কে পর)। শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব-অভিনেত্রীর পুরস্কার পাচ্ছেন ববিতা (কে আপন কে পর)। আজীবন সম্মাননা দেয়ার জন্য জুরি বোর্ড নাম প্রস্তাব করেছে নায়ক রাজ্জাকের নাম।
এবারের জুরি বোর্ডে ছিলেন উপসচিব (তথ্য মন্ত্রণালয়), অভিনয়শিল্পী ফারুক, আলমগীর, সুবর্ণা মুস্তাফা, চলচ্চিত্র গ্রাহক আবদুল লতিফ বাচ্চু, শিল্প নির্দেশক মহিউদ্দিন ফারুক, সঙ্গীতশিল্পী সাদী মহম্মদ এবং চলচ্চিত্র গবেষক অনুপম হায়াত্। তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এম হাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী খান সমন্বয়কারীর দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১১ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য মোট ২৭টি ছবি জমা পড়ে। এর মধ্যে ছিল ২০টি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র এবং ৭টি তথ্যচিত্র।